টোলের হার

যমুনা সেতুর টোল হার

দ্বিতীয়বারের মতো যমুনা সেতুর টোল নির্ধারণ করা হয়েছে। দেখে নিন, কোন যানবাহনের জন্য কত টাকা টোল দিতে হবে।

বঙ্গবন্ধু বা যমুনা বহুমুখী সেতু পারাপারে যানবাহনের টোল বৃদ্ধি করেছে সরকার। ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়ক দিয়ে, যমুনা নদীর ওপর স্থাপিত বঙ্গবন্ধু সেতুর মাধ্যমে উত্তরবঙ্গের ২৩টি জেলার সঙ্গে ঢাকার যোগাযোগ স্থাপিত হয়েছে। সবশেষ ২০১২ সালে এই সেতুর টোল বাড়ানো হয়েছিল। এবার দ্বিতীয়বারের মতো টোল বৃদ্ধি করা হয়েছে। ফলে বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল গড়ে প্রায় ১৭ শতাংশ বাড়বে।

যমুনা সেতুর টোল হলো বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ প্রকাশিত একটি নির্ধারিত ফি, যা যানবাহনের ধরনের উপর ভিত্তি করে নির্ধারণ করা হয়। যানবাহনের ধরনের উপর ভিত্তি করে, টোলের হার ৫০ টাকা থেকে ৩,০০০ টাকা পর্যন্ত নির্ধারিত করা হয়েছে।

২০২৩ সালে যমুনা সেতুর টোল হার

  • মোটরসাইকেলের টোল: ৫০ টাকা
  • হালকা যানবাহন (কার ও জিপ): ৫৫০ টাকা
  • মাইক্রো বা পিকআপ গাড়ি: ৬০০ টাকা
  • ছোট বাস (৩১ আসন বা এর কম): ৭৫০ টাকা
  • বড় বাস (৩২ আসন বা এর বেশি): ১০০০ টাকা
  • ছোট ট্রাক (৫ টন পর্যন্ত): ১০০০ টাকা
  • মাঝারি ট্রাক (৫ টন থেকে ৮ টন পর্যন্ত): ১২৫০ টাকা
  • মাঝারি ট্রাক (৮ টন থেকে ১১ টন পর্যন্ত): ১৬০০ টাকা
  • ট্রাক (৩ এক্সেল): ২০০০ টাকা
  • ট্রেইলার (৪ এক্সেল পর্যন্ত): ৩০০০ টাকা
  • ট্রেইলার (৪ এক্সেলের অধিক): ৩০০০ টাকা + প্রতি এক্সেলে ১০০০ টাকা
  • ট্রেনের জন্য বাৎসরিক ১ কোটি টাকা

বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলের হার

বর্তমান সেতুর টোল হার অনুসারে, সেতুতে মোটরসাইকেলের টোল ৫০ টাকা, কার ও জিপের বর্তমান টোল ৫৫০ টাকা। মাইক্রো বা পিকআপের ক্ষেত্রে টোল ৬০০ টাকা। ছোট বাসের ক্ষেত্রে টোল ৭৫০ টাকা করা হয়েছে। বড় বাসের টোল ১ হাজার টাকা। ছোট ট্রাকের টোল ১ হাজার টাকা করা হয়েছে। মাঝারি ট্রাকের (৫-৮ টন) টোল হবে ১ হাজার ২৫০ টাকা। ৮-১১ টনের মাঝারি ট্রাকের টোল ১ হাজার ৬০০ টাকা করা হয়েছে।

বড় ট্রাক ২০০০ টাকা ও ট্রেইলরের টোল ৩ হাজার টাকা করা হয়েছে। উল্লেখ্য, আগে ট্রেইলর বা অন্য বড় যানের জন্য আলাদা টোল ছিল না। বঙ্গবন্ধু সেতুতে ট্রেন চলাচল করে এবং ট্রেনের জন্য বাৎসরিক ১ কোটি টাকা টোল নির্ধারণ করা হয়েছে। রেল কর্তৃপক্ষ থেকে বছরে এক কোটি টাকা করে পায় সেতু বিভাগ।

যানবাহনটোল হার
মোটর সাইকেল৫০.০০
হাল্কা যানবাহন (কার/জীপ)৫৫০.০০
হাল্কা যানবাহন (মাইক্রো, পিকআপ) (১.৫ টনের কম)৬০০.০০
ছোট বাস (৩১ আসন বা এর কম)৭৫০.০০
বড় বাস (৩২ আসন বা এর বেশী)১০০০.০০
ছোট ট্রাক (৫ টন পর্যন্ত)১০০০.০০
মাঝারি ট্রাক (৫ টন  হতে ৮ টন পর্যন্ত)১২৫০.০০
মাঝারি ট্রাক (৮ টন হতে ১১ টন পর্যন্ত)১৬০০.০০
ট্রাক (৩ এক্সেল)২০০০.০০
ট্রেইলার (৪ এক্সেল পর্যন্ত)৩০০০.০০
ট্রেইলার (৪ এক্সেলের অধিক)৩০০০.০০ + প্রতি এক্সেল ১০০০.০০
ট্রেনবাৎসরিক ১ কোটি টাকা

রাজধানী ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের সড়ক পথে যোগাযোগের জন্য ১৯৯৪ সালে যমুনার নদীর ওপর এই সেতুর কাজ শুরু হয়। যমুনা নদীর পূর্ব তীরের টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর এবং পশ্চিম তীরের সিরাজগঞ্জকে সংযুক্ত করে। ৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট এই সেতুটি ১৯৯৮ সালের ২৩ জুন যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। এই সেতুর পরবর্তীতে নামকরণ করা হয় বঙ্গবন্ধু সেতু।

যমুনা সেতুর টোল ফি কত?

যমুনা সেতুর বর্তমান টোল হার অনুসারে, ২০২৩ সালে সেতুটি ব্যবহারের জন্য মোটরসাইকলকে ৫০ টাকা, কার ও জিপকে ৫৫০ টাকা, মাইক্রো, পিকআপ গাড়িকে ৬০০ টাকা, মিনিবাসকে ৭৫০ টাকা, বাসকে ১০০০ টাকা, ছোট ট্রাককে ১০০০ টাকা, মাঝারি ট্রাককে (৫-৮ টন) ১২৫০ টাকা, আবার ৮-১১ টনের মাঝারি ট্রাকের টোল ১৬০০ টাকা ও বড় ট্রাককে ২০০০ টাকা করে দিতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker on our website.